বাঙ্গালী
Sunday 9th of August 2020
  492
  0
  0

বোকো হারামের তাণ্ডবে মুছে গেল নাইজেরিয়ার শহর

বোকো হারামের তাণ্ডবে মুছে গেল নাইজেরিয়ার শহর

আবনা : স্যাটেলাইট ছবিতে জঙ্গিদের ধ্বংসযজ্ঞনাইজেরিয়ায় গত সপ্তাহে বোকো হারাম জঙ্গিদের আক্রমণে মানচিত্র থেকে প্রায় মুছে গেছে দুটি শহর। বৃহস্পতিবার অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল প্রকাশিত স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবিতে এই চিত্র দেখা গেছে। অ্যামনেস্টি আশঙ্কা করছে, সেখানে বহু লোক নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার এসব ছবি প্রকাশ করে অ্যামনেস্টির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নাইজেরিয়ার বাগা এবং ডোরোন বাগাত শহরে নির্বিচার ধ্বংসযজ্ঞের ছবি উঠে এসেছে এসব ছবিতে। এর আগে গত ৭ জানুয়ারি বোকো হারাম জঙ্গিরা নাইজেরিয়ার এই দুটি শহরে হামলা চালায়। তখন আশঙ্কা করা হয়, কমপক্ষে দুই হাজার লোক নিহত হয়েছে বোকো হারামের আক্রমণে। সংবাদসূত্র: বিবিসি, আল-জাজিরা
অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বৃহস্পতিবার নাইজেরিয়ার দুটি শহরে হামলার আগে ও পরে স্যাটেলাইটের তোলা ছবি প্রকাশ করে। মানবাধিকার সংস্থাটি জানায়, প্রথম ছবিগুলো হামলার আগে ২ জানুয়ারি তোলা এবং পরেরগুলো ৭ জানুয়ারি হামলার পরের। স্যাটেলাইটের ছবিতে ধ্বংস হওয়া এসব ছবিকে লাল চিহ্ন দিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে। এসব ছবি বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, বোকো হারামের তা-বে শহর দুটিতে প্রায় ৩ হাজার ৭০০ স্থাপনা ধ্বংস হয়ে গেছে। এর মধ্যে রয়েছে বাগা শহরের ৬০০ স্থাপনা এবং ডোরেন বাগা শহরের তিন হাজারেও বেশি। এছাড়া পাশের গ্রামগুলোতেও বোকো হারাম জঙ্গিরা ব্যাপক তা-ব চালায় বলে জানিয়েছে অ্যামনেস্টি।
প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষাৎকার নেয়ার ভিত্তিতে তৈরি রিপোর্টে সংস্থাটি বলেছে, সেখানে শতশত লোককে নির্বিচারে গুলি করে জঙ্গিরা। স্থানীয় মানবাধিকারকর্মী ও সরকারি কর্মকর্তারাও এ কথা জানান। তারই ভিত্তিতে শহর দুটিতে দুই হাজারের বেশি লোক নিহত হওয়ার আশঙ্কা করছে অ্যামনেস্টি। কিন্তু নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, সেখানে ১৫০ জন নিহত হয়েছে। তবে গত সপ্তাহে ওই এলাকার এক ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা বলেছিলেন, বাগা থেকে পালিয়ে আসা লোকজনরা তাকে বলেছে, ওই শহরের প্রায় ১০ হাজার অধিবাসীর বেশিরভাগেরই কোনো চিহ্ন নেই। শহরটি পুরোই জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে।
শহর ছেড়ে পালিয়ে যাওয়া লোকজন পরে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছে, পালিয়ে আসার সময় জঙ্গলের ঝোঁপে সারিসারি লাশ দেখেছেন তারা। এক নারী বিবিসিকে বলেন, 'আমার পেছনে যেদিকে তাকিয়েছি, শুধু লাশ আর লাশ দেখতে পেয়েছি।'
বোকো হারাম জঙ্গিদের এই হামলা ও ধ্বংসলীলাকে বিপর্যয়কর বলে আখ্যা দিয়েছে অ্যামনেস্টি। সংস্থাটি বলছে, মাত্র চারদিনের ব্যবধানে একটি অংশ প্রায় মানচিত্র থেকে মুছেই গেছে।


source : www.abna.ir
  492
  0
  0
امتیاز شما به این مطلب ؟

latest article

    'গাজায় ইসরাইলি বিমান হামলার শরিক ...
    আরবাইনের পদযাত্রায় যায়েরদের সেবা ...
    দুই শতাধিক ধর্ষণ করেছি’
    Al-Wefaq pénalité et de la vie plainte mort et l'emprisonnement 10 bahreïnies
    রুহানির চিঠির জবাবে সর্বোচ্চ নেতা: ...
    যুক্তরাষ্ট্রের বর্ণবাদী চেহারার ...
    ইসরাইল ধ্বংস না হওয়া পর্যন্ত ...
    জনসম্মুখে মাকে হত্যা করলো আইএসআইএল ...
    জেএমবির নারী শাখার প্রশিক্ষক আটক
    জম্মু-কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনীর ...

 
user comment