বাঙ্গালী
Saturday 24th of February 2018
code: 80817

নাইজেরিয়ার শিয়াদের উপর সেনাবাহিনীর হামলা (ছবি)

নাইজেরিয়ার শিয়াদের উপর সেনাবাহিনীর হামলা (ছবি)
হযরত ফাতেমা যাহরা (সা. আ.) এর পবিত্র শাহাদত বার্ষিকীতে, নাইজেরিয়া ইসলামি মুভমেন্টের কার্যালয়ে দেশটির পুলিশ ও সেনা সদস্যদের হামলায় বেশ কয়েকজনকে আহত হয়েছে।

হলে বাইত (আ.) বার্তা সংস্থা (আবনা): স্থানীয় গণমাধ্যম গত বৃহস্পতিবার (২ মার্চ) নাইজেরিয়ার শিয়াদের উপর পূনরায় সেনা সদস্যদের হামলার তথ্য প্রকাশ করেছে।

এ প্রতিবেদনের ভিত্তিতে নাইজেরিয়ার পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সশস্ত্র সৈন্যরা গত বুধবার (১ মার্চ) রাতে কাস্টিনা শহরে অবস্থিত ইসলামি মুভমেন্ট ইন নাইজেরিয়ার কার্যালয়ে হামলা চালায়।

কাস্টিনা শহরের শিয়া নেতা শেইখ ইয়াকুব ইয়াহিয়া’র বাসভবনকে লক্ষ্য করে চালানো এ হামলায় বেশ কয়েকজন আহত হয়। আহতদের মাঝে বেশ কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে আহতদের সঠিক সংখ্যার বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্যমতে, নাইজেরিয়ার পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা কোন সার্চ ওয়ারেন্ট ছাড়াই জোরপূর্বক মারধর করে ঐ ভবনে প্রবেশ করে।

এ হামলার কয়েক ঘন্টা পরে কাস্টিনা শহরের মেয়র এক বার্তায় সকল প্রকার অবৈধ সমাবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন।

নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনী ২ বছর আগেও এ দেশের যারিয়া শহরে শিয়াদের উপর বর্বর হামলা চালিয়ে শত শত ব্যক্তিকে শহীদ করেছিল।

এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের এ সংক্রান্ত এক প্রতিবেদনে ঐ হামলায় ৩৫০ জন নিহত হওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছিল। কিন্তু বেসরকারি পরিসংখ্যানে বলা হয় হামলায় ১ হাজার ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

যারিয়া শহরে সেনাবাহিনীর হামলায় বহু লোকের প্রাণহানীর কথা উল্লেখ করে, নিহতদের পরিবারের অনুমতি ছাড়াই তাদেরকে গণকবরের দাফনের বিষয়ে দেশটির সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিল হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

এ হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় সংখ্যালঘু শিয়াদের অধিকার লঙ্ঘনের বিষয়ে আন্তর্জাতিক তদন্ত শুরু হয়েছে ইতিমধ্যে। তবে হাস্যকর বিষয় হলো, এ হামলার সাথে জড়িত নাইজেরিয়া সরকার নিজেই এ বিষয়ে তদন্তের দাবী করেছে।

যারিয়া শহরে অবস্থিত ইসলামিক মুভমেন্ট ইন নাইজেরিয়া’র কার্যালয় ভবনে হামলায় এ মুভমেন্টের নেতা শেইখ ইব্রাহিম যাকযাকি মাথা ও চোখে গুরুতর আঘাত পান। ঐ অবস্থায় তাকে তার স্ত্রীর সাথে আটক করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিকে, এ ঘটনার পর শেইখ যাকযাকির আটককে অবৈধ বলে ঘোষণা করে অনতি বিলম্বে তাকে মুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছে নাইজেরিয়ার সুপ্রিম কোর্ট।

উল্লেখ্য, গতকাল সকালেও নাইজেরিয়ার আবুজা শহরে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ছাত্র শেইখ ইব্রাহিম যাকযাকির সমর্থনে মিছিল করেছে। এ সময় তারা আদালতের রায়ের প্রতি সম্মান জানানোর জন্য নাইজেরিয়া সরকার ও সেনাবাহিনীর প্রতি আহবান জানায়।#

latest article

  ইসলাম আমার জীবনকে পুরোপুরি বদলে ...
  মুর্শিদাবাদে দুই জেএমবি সদস্য ...
  আলেম হত্যার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ ...
  ফিলিস্তিনে ট্রাম্প ও পেন্সের ...
  আরবরা যখন দায়েশকে সুন্নি সংগঠন বলে ...
  মিয়ানমারে ভেঙ্গে দেয়া হল শতবর্ষী ...
  নাইজেরিয়ায় পুলিশের গুলিতে শিয়া ...
  ট্রাম্পের ব্যর্থতায় ইরানের লাভ
  দেশ ছাড়তে গিয়ে বিমানবন্দরে ব্লগার ...
  অপহৃত শিয়া ব্যক্তিত্ব উদ্ধারে ...

user comment