বাঙ্গালী
Friday 19th of July 2019
  2325
  0
  0

সার্ক শীর্ষ সম্মেলন বর্জনের সিদ্ধান্ত নিল বাংলাদেশ: বিভিন্ন মহলের প্রতিক্রিয়া

সার্ক শীর্ষ সম্মেলন বর্জনের সিদ্ধান্ত নিল বাংলাদেশ: বিভিন্ন মহলের প্রতিক্রিয়া

আবনা ডেস্ক: বাংলাদেশের মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে অব্যাহতভাবে পাকিস্তান হস্তক্ষেপ করায় ইসলামাবাদে নির্ধারিত সার্ক শীর্ষ সম্মেলনে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ।
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম আজ বুধবার দুপুরে তাঁর দপ্তরে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।
গতকাল মঙ্গলবার বাংলাদেশ, ভারত, আফগানিস্তান ও ভুটান এই সম্মেলনে যোগ না দেওয়ার কথা জানিয়েছে। এর ফলে আট সদস্যের এই জোটের শীর্ষ সম্মেলন স্থগিত হয়ে গেছে। পাকিস্তানের ইসলামাবাদে এই সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল।
সার্ক সনদ অনুযায়ী দক্ষিণ এশিয়ার আট-জাতির আঞ্চলিক জোটের কোনো সদস্য দেশের সরকার বা রাষ্ট্রপ্রধান না গেলে শীর্ষ সম্মেলন স্থগিত হয়ে যায়।
সার্কের সভাপতি দেশ নেপাল নতুন করে সম্মেলনের স্থান নির্ধারণের জন্য আহ্বান জানিয়েছে।
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম  আজ সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, গতকাল সার্কের সভাপতি দেশ নেপাল ও সার্ক সচিবালয়কে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেয়া হয়েছে  যে নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় ১৯তম সার্ক শীর্ষ সম্মেলনে বাংলাদেশ যোগ দিচ্ছে না। কারণ হিসেবে আমরা বলেছি, আঞ্চলিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে যে সম্পর্ক থাকা উচিত বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে একটি রাষ্ট্রের অব্যাহতভাবে হস্তক্ষেপ এই সম্মেলন আয়োজনের জন্য উপযোগী নয়।
পাশাপাশি বাংলাদেশ জানিয়ে দিয়েছে, সার্কের প্রতিষ্ঠাতা দেশ হিসেবে বাংলাদেশ আঞ্চলিক সহযোগিতা, কানেকটিভিটি ও সার্বিক সহযোগিতার বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে থাকে। সময় ও সুযোগ যখন আসবে বাংলাদেশ তখন সার্ক শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবে।’
বাংলাদেশের এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে অন্য কোনো রাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের কোনো সম্পর্ক নেই বলে মন্তব্য করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।
এ প্রসংগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড: আকমল হোসেন রেডিও তেহরানকে বলেন, বাংলাদেশের সাথে পাকিস্তানের সম্পর্কের তিক্ততা এবং পাশাপাশি বাংলাদেশের সাথে ভারতের সম্পর্কের সর্বাধিক গভীরতার প্রতিফলন হচ্ছে বাংলাদেশের সার্ক শীর্ষ সম্মেলনে না যাবার সিদ্ধান্ত।
তিনি মনে করেন এর ফলে আঞ্চলিক সম্পর্কের ক্ষেত্রেও এর প্রভাব পড়বে।
তবে, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক  মুহাম্মদ রুহুল আমিন বলেন, ভারত যাচ্ছে না বলে বাংলাদেশও সার্কে না যাবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিষয়টি সেরকম নয়।
তিনি মনে করেন, সার্কে না যাবার ফলে যদি কিছু ক্ষতি হয় তবে  তা অন্যান্য আঞ্চলিক জোটের মাধ্যমে পুষিয়ে নেয়া যাবে।
যে সব কারণ দেখিয়ে বাংলাদেশ সার্ক সম্মেলনে যাচ্ছে না সে সব কারণে পাকিস্তানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করা হবে কি না?—এরকম প্রশ্নের  জবাবে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেছেন, ‘সেটা সময়ই বলে দেবে।’#


source : abna24
  2325
  0
  0
امتیاز شما به این مطلب ؟

latest article

      ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় হামাসের ২ ...
      'গাজায় ইসরাইলি বিমান হামলার শরিক ...
      ইয়েমেনে শিশুদের ওপর হামলায় মার্কিন ...
      আগ্রাসীদের রাজধানী আর নিরাপদ থাকবে ...
      গ্রিসে ইসলামের প্রসার বাড়ছে
      ঘুড়ি ও বেলুনে অসহায় ইসরাইলের নয়া ...
      সৌদি জোটের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ
      ইয়েমেনিদের হামলায় ৫৮ সৌদি সেনা নিহত
      শুক্রবার দেখা যাবে শাওয়াল মাসের নতুন ...
      ইসরাইল-বিরোধী সংগ্রাম জোরদারের শপথে ...

 
user comment