বাঙ্গালী
Wednesday 27th of March 2019
  1891
  0
  0

শাহাদাতের আগে মাকে লেখা শেইখ নিমরের মর্মস্পর্শী চিঠি

শাহাদাতের আগে মাকে লেখা শেইখ নিমরের মর্মস্পর্শী চিঠি


৩ জানুয়ারি (রেডিও তেহরান): সৌদি আরবের প্রখ্যাত আলেম আয়াতুল্লাহ শেইখ নিমর বাকের আন-নিমরের শাহাদাতের পর মাকে লেখা তাঁর একটি চিঠি প্রকাশিত হয়েছে। সৌদি রাজতান্ত্রিক সরকার শাইখ নিমরের ফাঁসি কার্যকর করার পর গতকাল (শনিবার) তার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে চিঠিটি প্রকাশ করা হয়। ওই ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের সংবাদ শুনে শাইখ বিচলিত হননি বরং আনন্দ প্রকাশ করে বলেন: ‘মহান আল্লাহ তোমাদেরকে কল্যাণকর সুসংবাদ দান করুন’। শেইখ নিমরের চিঠিটির বাংলা অনুবাদ প্রকাশ করা হলো-
 
 


আমার ধৈর্যশীল মা; উম্মু জা'ফারকে,
 
 
 
মা! আমি সর্বদা মহান আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ। যা কিছু ঘটবে তা আমি স্বাচ্ছন্দে গ্রহণ করে নেব। কেননা মহান আল্লাহ্ কর্তৃক নির্ধারিত কোনো বিষয়, মানুষের নির্ধারিত বিষয় অপেক্ষা অধিক শ্রেয়। তিনি যা কিছু আমাদের জন্য নির্ধারণ করেন তা, আমরা যা কিছু নিজেদের জন্য চাই তা অপেক্ষা অধিক কল্যাণকর। এটা ঠিক যে, আমাদের উচিত দোয়া করা ও তাঁর নিকট প্রার্থনা, কিন্তু কোনটি আমাদের জন্য কল্যাণকর তা তিনিই আমাদের চেয়ে ভালো জানেন।
 
 
 
সকল প্রশংসা মহান আল্লাহর জন্যই, তিনি মানুষকে নির্দেশ দেন এবং মানুষও তারই কর্তৃত্বের ছায়াতলে রয়েছে। যদি মহান আল্লাহ্ না চান তবে কেউ কোনো কিছুকে কোনো স্থান থেকে সরাতে পারে না।
 
 
 
হে প্রাণপ্রিয় মা! তুমি তো জানই, মহান আল্লাহ সবকিছু দেখেন। তুমি নিশ্চিত থাক যে, মানুষের সবচে ক্ষুদ্র কর্মগুলোও তার দৃষ্টিতে রয়েছে এবং তার ইচ্ছার বহির্ভূত নয়। আমাদের জন্য এটা জানাই যথেষ্ট যে, যা কিছুই ঘটবে তা তার দূরদর্শিতা ও ইচ্ছার ভিত্তিতে ঘটবে, অন্য কিছু নয়।
 
 
 
সর্বশেষে আমি তোমাকে ও সব জনগণকে মহান আল্লাহর হেফাজতে সোপর্দ করলাম, নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ সর্বোত্তম রক্ষাকারী।
 
 
 
তোমার প্রিয়
 
শাইখ নিমর বাকের আন-নিমর
 
 
 
এদিকে, মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আগে শেইখ নিমর ও তাঁর মমতাময়ী মায়ের টেলিফোনে সংক্ষিপ্ত কথোপকথনের অডিও প্রকাশিত হয়েছে। ইউটিউবে আপলোড ও ফেসবুকে শেয়ার হয়েছে। টেলিফোনে শেইখ নিমর তাঁর মাকে বলেন, “আমি খুব দ্রুত বেহেশতের সুউচ্চ স্থানে চলে যাব। মা, তুমি ধৈর্য ধারণ করো। মহান আল্লাহকে সর্বদা ধন্যবাদ।”  


 
 
সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় শিয়া অধ্যুষিত কাতিফ প্রদেশ থেকে ২০১২ সালে সৌদি রাজতান্ত্রিক সরকারের কঠোর সমালোচক শেখ নিমরকে গুলি করে আহত করার পর তাকে আটক করে সৌদি পুলিশ। সাম্প্রদায়িক বিভেদ উস্কে দেয়া এবং রাজা সালমান বিন আব্দুল আজিজকে অমান্য করা, সরকারবিরোধী বক্তব্য এবং কারাবন্দিদের মুক্তি দাবি করার কথিত অভিযোগে গত বছর শেখ নিমরের প্রাণদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়। অবশ্য এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন শেখ নিমর।
 
 
 
২০১৪ সালে সৌদি আদালত শেখ নিমরকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিলে বিশ্বব্যাপী প্রতিবাদ ও নিন্দার ঝড় ওঠে। গত মার্চে সৌদি আপিল বিভাগ শেখ নিমরের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ বহাল রাখে। এতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন এবং ইরান, ইরাক, লেবানন, আফগানিস্তান ও ভারতসহ অন্যান্য মুসলিম দেশ কড়া প্রতিবাদ জানায়।বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ শেখ নিমরসহ অন্যান্য রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তির জন্য তখন রাস্তায় ব্যাপক প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেছিল।
 
 
 
কিন্তু বিশ্বব্যাপী প্রতিবাদ এবং নিন্দা সত্ত্বেও সৌদি আরবের প্রখ্যাত শিয়া আলেম শেখ নিমর আল-নিমরসহ ৪৭ ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে বলে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।
 
 
 
রাজনৈতিক এ হত্যাকাণ্ডের পর প্রতিবাদের ঢেউ ছড়িয়ে পড়েছে ইরান থেকে গোটা মধ্যপ্রাচ্যে। রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে কূটনৈতিক নিন্দা জানিয়েছে ইরান, বাহরাইন, লেবাননসহ কয়েকটি দেশ।  এছাড়া, সৌদি আরব, ইরানসহ বিভিন্ন দেশে শেখ নিমরের হাজার হাজার অনুসারীরা নেমে প্রতিবাদ জানিয়েছে। সৌদি আরবের কাতিফ শহর এখন শোকের শহরে পরিণত হয়েছে।#
 
 
 
রেডিও তেহরান/এআর/৩


source : irib
  1891
  0
  0
امتیاز شما به این مطلب ؟

latest article

      সিরিয়ায় ১,০০০ সৈন্য মোতায়েন রাখতে চায় ...
      যৌন জিহাদ’ থেকে গর্ভবতী হয়ে ফিরছে ...
      পাকিস্তান সীমান্তের কাছে ট্যাংক ...
      ভারতে যে দাঙ্গা মুসলিম নারীদের ...
      ওয়াহাবীদের গ্রান্ড মুফতি কে? (পর্ব ১)
      সৌদি আরবের গ্রান্ড মুফতি কে? (পর্ব ২)
      ওয়াহাবীদের গ্রান্ড মুফতি কে? (পর্ব ৩)
      গাধা ও কুকুরকে শরিয়ত ভিত্তিক উপায়ে ...
      নাইজেরিয়ায় ইসলাম প্রচার ততপরতায় ...
      যদি আল-মাজেদ জীবিত থাকতেন...

 
user comment